img
Home / জানালার বাহিরে / অব্যক্ত হৃদকথন

অব্যক্ত হৃদকথন

/
/

বড় অদ্ভুত এই বেঁচে থাকা, বড় রহস্যময় মানুষের মন। নিঃশ্বাস, প্রশ্বাস, হৃদস্পন্দন, ছন্দময় চোখের পলক যেন এক আশ্চর্য আধ্যাত্মিক সংমিশ্রণ। বাস্তবতা আর কল্পনা যেন দুটো সমান্তরাল সরলরেখা। পাশাপাশি বয়ে চলে আজীবন, খুব কাছাকাছি কিন্তু কেউ কাউকে স্পর্শ করতে পারে না, কেবল দীর্ঘশ্বাসে চেয়ে থাকে অপলক, স্পর্শ করার আকাঙ্ক্ষায় পার করে দেয় জীবনের সোনালী সাঁঝ বেলা…

কিছু কথা থাকে যা শুধুই নিজের জন্য, একান্ত ব্যক্তিগত। কিছু কিছু ইচ্ছে, যার কোন নাম হয় না, যে সকল ইচ্ছে হওয়ার কোন কারন ও লাগে না। কিছু কথা রয়ে যায় অনুচ্চারিত, অপ্রকাশিত, অব্যক্ত। খুব প্রিয় বা কাছের মানুষটিকেও বলা যায়না। পুরোটা জীবন পাশাপাশি চলা সাথীও জানেনা তার অতল খোঁজ। হৃদয়ের সবচাইতে গোপন প্রকোষ্ঠে তাদের অবস্থান, খুব নিরবে তাদের বিচরন ।

কোন কোন ইচ্ছে প্রতিদিন অনিচ্ছাকৃত মরে যায়, অযত্নে, অবহেলায়। প্রতিদিনই কিছু কিছু না বলা কথা নির্বাসিত হয়, বাধ্য হয়ে। ব্যর্থ প্রেমের মতো কিছু কিছু ভালোলাগা স্মৃতির কঠিন, জটিল, দুরারোগ্য অসুখে ভোগে দীর্ঘদিন। কিছু কিছু ভালোবাসাকে স্বইচ্ছায় হত্যা করি, ইচ্ছার হননে বিবর্ন হই বারবার, তবু হত্যা করতেই হয়।

হঠাৎ খুব কোলাহলে, ভিষণ রকমের ব্যস্ততায়, অথবা অখণ্ড কোন নীরবতায়, বিচ্ছিন্ন কোন অবসরে, আনমনা খেয়ালে এক ঝলক বিদ্যুতের মতোই চমকে ওঠে মনের রঙীন পর্দায়। ফুলের বর্ণীল কোন রঙে, গানের দু একটা কলিতে, মুক্ত বিহঙ্গের স্বাধীন ডানায় অথবা আকাশের নীলাভ নীলে তারা মিশে থাকে, জড়িয়ে থাকে অবিচ্ছিন্নতায়। আর কেউ জানে না, দেখে না কেউ। তারা ফিরে আসে খুব গোপনে, বারবার ফিরে আসে, আসতে চায়, প্রকাশিত হতে চায় অন্যরকম  তীব্রতায়। কখনো সে ইচ্ছেগুলো প্রিয় বন্ধুর মতো হাসায়, শত্রুর মতো আঘাত করে, প্রেমিকের মতো ভালোবাসে, কখনো বা উপেক্ষা আর অবহেলার পাহাড় চাপায়, কখনও প্রেমিকার অভিমান হয়ে ঝরে পড়ে মনের সঞ্চিত আঙিনায়। সমস্ত আঁধার, একাকিত্ব, নিঃসঙ্গতা  আর শূন্যতাকে ঘিরে ধরে থাকে কিছু না বলা কথা, কিছু  অপূর্ণ গোপন ইচ্ছে, তারা শুধু জেগে থাকে জনম জনম ধরে,  অতন্দ্র প্রহরীর মতো

Comments Below

comments

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Pinterest
  • stumbleupon